জেনে নিন ভারত ও পাকিস্তানের যুদ্ধের কিছু ইতিহাস - Ata Gache Tota Pakhi on a Short brief on India Pakistan War

ভারত ও পাকিস্তানের মধ্যে ঘটে যাওয়া চারটি যুদ্ধের সংক্ষিপ্ত বিবরণ (India Pakistan War)


প্রথম কাশ্মীর যুদ্ধে ভারতীয় সেনা
Photo : Wikipedia

প্রথম কাশ্মীর যুদ্ধ (১৯৪৭-১৯৪৯) -


     স্বাধীনতার সময় কাশ্মীর একটি হিন্দু রাজার দ্বারা পরিচালিত একটি স্বাধীন রাষ্ট্র ছিল | ভারত ও পাকিস্তান দুই পক্ষই চাইতো কাশ্মীর তাদের পক্ষে যোগ দিক | পাকিস্তানের ভয় ছিল যে কাশ্মীর স্বাধীন রাষ্ট্র না থেকে ভারতের পক্ষে যোগ দেন করবে, যেখানে দুই তৃতীয়ংশ মানুষ মুসলিম ধর্মালম্বী এমন রাষ্ট্র হাতছাড়া হবার ভয়ে পাকিস্তান স্বাধীনতা লাভের কয়েক সপ্তাহ পরেই কাশ্মীর আক্রমণ করে | প্রথম আক্রমণ ওয়াজিরিস্তান থেকে করা হয় | লক্ষ করার বিষয় এই আক্রমণ পাকিস্তানী আর্মড ফোর্স দ্বারা করা হয় নি | পাকিস্তানী আর্মড ফোর্স এর পৃষ্টপোষকতায় লস্কর নামক এক উপজাতি গোষ্ঠী এই আক্রমণ চালিয়ে ছিল | 

একই সময় লর্ড মাউন্টব্যাটেন এর পৃষ্টপোষকতায় কাশ্মীর কে ভারত এর অন্তর্ভুক্ত করার পর পাকিস্তান এই অন্তর্ভুক্তি মেনে নেয় নি | উল্টে লস্কর গোষ্ঠী কে সম্পূর্ণ সহযোগিতা করা চালু রেখেছিলো |

১ লা জানুয়ারী ১৯৪৯ আনুষ্টানিক ভাবে যুদ্ধবিরতি ঘোষণা করা হয় | ও স্বাধীন কাশ্মীর রাষ্ট্রের দুই তৃতীয়াংশ ভারত ও এক তৃতীয়াংশ পাকিস্তানের অধিকারে চলে আসে | এভাবেই জন্ম নেই পাক অধিকৃত কাশ্মীর |


সম্পূর্ণ যুদ্ধে ১১০৪ জন ভারতীয় সেনা নিহত ও ৩১৫৪ জন আহত হন | যেখানে পাকিস্তানের নিহত সংখ্যা ছিল ৬০০০ ও আহত ১৪০০০ এর বেশি |

১৯৬৫র ভারত বনাম পাকিস্তান যুদ্ধ – 

১৯৬৫ তে যুদ্ধে বিধস্ত ভারতীয় ট্যাংক

Photo: WikipediaBy Abhinayrathore at English Wikipedia - India Pakistan War 1965

এই যুদ্ধের শুরু পাকিস্তানের অপারেশন জিব্রাল্টার এর মধ্য দিয়ে হয় | অপারেশন জিব্রাল্টার ছিল মূলত জম্মু ও কাশ্মীর এ পাকিস্তানী ফোর্স অনুপ্রবেশ করিয়ে ভারত সরকারের বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষণা করা | ৫ অগাস্ট ১৯৬৫, কমপক্ষে ৩০ হাজার পাকিস্তানী সৈন্য স্থানীয় কাশ্মীরির ছদ্মবেশে লাইন অফ কন্ট্রোল পার করে ভারতে প্রবেশ করে | এর জবাবে ভারত সম্পূর্ণ মিলিটারি অ্যাকশন শুরু করে ও পাক অধিকৃত কাশ্মীর এর ৮ কিমি ভেতরে হাজি পীর পাস দখল করে নেয় |

এর পর ১লা সেপ্টেম্বর পাকিস্তান জম্মুর আখনুর শহর দখল করার জন্যে অপারেশন গ্রান্ড স্ল্যাম শুরু করে | কিন্তু ততদিনে পাকিস্তানের অপারেশন জিব্রাল্টার সম্পূর্ণ ফ্লপ হয়ে গিয়েছিলো ভারতীয় সেনাবাহিনীর তৎপরতায় | 

১৯৬৫ এর লড়াই আরো একটু কারণে উল্লেখযোগ্য | দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পর সবচেয়ে বড় ট্যাংক লড়াই এই লড়াই এ ঘটে থাকে | প্রসঙ্গত এই সময় পাকিস্তান শক্তিশালী মার্কিন ট্যাংক দ্বারা সজ্জিত ছিল | সেই সময় ভারতীয় ট্যাংক বাহিনীর থেকে শক্তিশালী থাকা সত্ত্বেও পাকিস্তান ভারতও ট্যাংক ফোর্স এর সাথে লড়াই তে পিছিয়ে যেতে বদ্ধ হয় | যার ফলস্বরূপ ভারত লাহোর এর শিয়ালকোট পর্যন্ত অধিকার করে নেয় | এই যুদ্ধে পাকিস্তানের উদ্দেশ সম্পূর্ণ ভাবে পরাজিত হয় |
লাইব্রেরি অফ কংগ্রেস কান্ট্রি স্টাডিস (আমেরিকা) এর অনুযায়ী ক্ষয়ক্ষতি পাকিস্তানের দিকে অনেক বেশি ছিল | এবং যুদ্ধ বিরতি না ঘোষণা করা হলে পাকিস্তানের হার সম্পূর্ণ নিশ্চিত ছিল | যদিও পাকিস্তান আর্মি এই হার কখনো মানতে নারাজ |

১৯৭১র ভারত বনাম পাকিস্তান-

পাকিস্থানএর আত্মসমর্পণ দলিল এর স্বাক্ষর

By Indian Navy - Cropped version of image from Indian navy website

১৯৭১ এর যুদ্ধ একমাত্র ভারত বনাম পাকিস্তান এর একমাত্র লড়াই যার কারণ কাশ্মীর নয়| এই যুদ্ধ ছিল পূর্ব পাকিস্তানের (বাংলাদেশ) স্বাধীনতার লড়াইএর পটভূমি| যদিও ভারত বাংলাদেশ কে সামরিক সাহায্যের প্রতিশ্রুতির আগেই ৩রা ডিসেম্বর ১৯৭১ পাকিস্তান ভারতের ১১ টি এয়ার স্টেশন হামলা চালিয়ে দিয়েছিলো যার ফল হিসাবে ৭১ এর লড়াই শুরু হয় | যুদ্ধ মাত্র ১৩ দিন স্থায়ী হয় যা পৃথিবীর ইতিহাসএ সবচেয়ে কম সময় ধরে চলা যুদ্ধ হিসাবে মনে করা হয়| যুদ্ধ শেষে ১৬ ডিসেম্বর পাকিস্তানী এয়ার ফোর্স ঢাকায় instrument অফ surrender স্বাক্ষর করে (ছবি) | স্বাধীন বাংলাদেশ এর জন্ম হয় |

সম্পূর্ণ লড়াইতে আনুমানিক ৯০ হাজার পাকিস্তানি সামরিক অসামরিক মানুষ ভারতীয় সেনার হাতে বন্দি হন | আনুমানিক লক্ষ থেকে ৩০ লক্ষ বাংলাদেশি মানুষ পাকিস্তানের সৈন্য দের হাতে নিহত হন| দুঃখজনক ভাবে মুক্তিযুদ্ধের এই লড়াই চলাকালীন লক্ষ থেকে লক্ষ বাংলাদেশী নারী শিশু পাকিস্তানী আর্মি আর্মি মদতপুষ্ট জঙ্গি গোষ্ঠী দ্বারা ধর্ষিত হয়েছিল| (সূত্র: Indo-Pakistani_War_of_1971)


ভারত বনাম পাকিস্তান ১৯৯৯ -

কার্গিল জয়ের পর ভারতীয় সেনা

Image: Indian Navy

১৯৯৯ এর এই লড়াই কার্গিল যুদ্ধ নামেই বেশি পরিচিত| প্রতিবারের মতো এই বারও পাকিস্তানএর সৈন্য জঙ্গি অনুপ্রবেশ এই লড়াই এর কারণ| ৩রা মে প্রথম ভারত অধিকৃত কাশ্মীরে পাকিস্তানী অনুপ্রবেশকারীর খবর মেলে | ভারতীয় সেনা পেট্রল টীম পাঠালে জন ভারতীয় সেনা বন্দি হন জঘন্য অত্যাচারের পর তাদের মৃত্যু হয়| একই সঙ্গে পাকিস্তানি সেনা দের দিকথেকে কার্গিল এর বিশেষ অঞ্চল গুলিতে বোমা বৃষ্টি শুরু হয় |

পাকিস্তান দ্বারা অধিকৃত এলাকা গুলির ৭০%-৮০% ভারতীয় বাহিনী সামরিক অভিযানের মাধ্যমে জয় করে| বাকি জায়গা থেকে পাকিস্থান নিজের সেনা প্রত্যাহার করতে বাধ্য হয়| এই লড়াই পাকিস্থান সেনাবাহিনীর সবচাইতে বড় পরাজয় হিসাবে বলা হয় | (সূত্র : Wikipedia- MacDonald, Myra (2017). Defeat is an Orphan: How Pakistan Lost the Great South Asian War. Oxford University Press. pp. 27, 53, 64, 66. ISBN 978-1-84904-858-3. p. 27: It was not so much that India won the Great South Asian War but that Pakistan lost it.
p. 53: The story of the Kargil War—Pakistan's biggest defeat by India since 1971 —is one that goes to the heart of why it lost the Great South Asian War.) 

পাক প্রধানমন্ত্রী নাওয়াজ শরীফ এর কথা অনুযায়ী পাকিস্তানের ৪০০০ সৈন্য মুজাহিদ্দিন এর মৃত্যু হয় | যদিও প্রথম দিকে পাকিস্তান কোনো ক্যাসুয়ালটি স্বীকার করতে চাই নি| এমনকি বেশ কিছু ক্ষেত্রে অফিসারদের মৃতদেহ নিতে অস্বীকার করে| অপরদিকে ভারত এর ৫২৭ জন সৈন্য নিহত ১৩৬৩ জন নিহত হন|