আফগানিস্তানে হওয়া মার্কিন আক্রমণের পরবর্তী কিছু বিষয় যা আপনি জানতে চাইবেন - Afganistan War : Ata Gache Tota Pakhi


আফগানিস্তানে আমেরিকান আক্রমণের পরবর্তী কিছু অজানা ঘটনা যা জেনে আপনি আশ্চর্য হবেন (Afganistan War)





Photo credit : WikipediaBy Capt. Jarrod Morris 


     ৭ই অক্টোবর ২০০১ আফগানিস্তানের উপর আমেরিকার আক্রমণের পর আমেরিকা সহযোগী ন্যাটো ছাড়াও আরো ৪০ টি দেশের পূর্ণ সমর্থন পেয়েছিলো | এই অভিযানের মূল লক্ষ্য ছিল আল-কায়দার সম্পূর্ণ ধংস সাধন ও তালিবানদের অপসারণ | ২০১১ সাল পর্যন্ত সম্মিলিত গোষ্ঠীর ৪০০০ ও আফগান ন্যাশনাল সিকিউরিটি ফোর্স এর ১৫০০০ সৈন্য মারা যায় | ৩১০০০ এর বেশি অসামরিক নাগরিক মারা যাবার সাথে সাথে ২৯৯০০ আহত এর সংখ্যা নথিভুক্ত হয়েছিল | মার্কিন ইতিহাসে এই যুদ্ধ দ্বিতীয় বৃহত্তম যুদ্ধ বলা হয় |

আরো পড়ুন- জেনে নিন ভারত ও পাকিস্তানের যুদ্ধের কিছু ইতিহাস

জনমত

     সেপ্টেম্বর ২০০১ হওয়া সার্ভে অনুযায়ী ৮৮% আমেরিকান ৬৫% ব্রিটিশ নাগরিক এই যুদ্ধ শুরুর সপক্ষে ছিলেন |এবং /১১ আক্রমণের পর ৩৭টি দেশে হাওয়া সার্ভে অনুযায়ী তিনটি দেশএর জনমত মিলিটারি অ্যাকশন এর পক্ষে সব চেয়ে বেশি ছিল - আমেরিকা, ইসরায়েল ভারত | যেখানে আন্তর্জাতিক স্তরে আইনি কার্যকলাপএর পক্ষে সর্বোচ্চ রায় ছিল ব্রিটেন (৭৫%), ফ্রান্স (৬৭%), সুজারল্যান্ড (৮৭%), চেক রিপাবলিক (৬৪%), লিথুয়ানিয়া (৮৩%), পানামা (৮০%) এবং মক্সিকো (৯৪%) |


Photo credit: Wikipedia, By Cpl. James L. Yarboro, U.S. Marine Corps, Afganistan war
খরচ

     মার্চ ২০১১ প্রকাশিত আমেরিকান কংগ্রেসিয়াল রিসার্চ অনুযায়ী ২০০৯ সাল থেকে ২০১১ এর মধ্যে আফগানিস্তান এর প্রতিরক্ষা খাতে আমেরিকার খরচ ৫০% বৃদ্ধি পেয়েছিলো | ২০০৯ সালে যেখানে আনুমানিক খরচ হয়েছিল . বিলিয়ন মার্কিন ডলার সেখানে ২০১১ খরচ  দাঁড়িয়েছিল . বিলিয়ন মার্কিন ডলার প্রতিবছর | ২০০১ থেকে ২০১১ পর্যন্ত খরচ মোট ৪৬৮ বিলিয়ন মার্কিন ডলার ছাড়িয়ে গিয়েছিলো | আফগানিস্তানে এক জন আমেরিকান সৈন্য নিয়োগের খরচ হতো বছরে মিলিয়ন মার্কিন ডলার এর কিছু বেশি |

     ২০১৩ সালে পরবর্তী বছরের সৈন্য প্রত্যাহারের প্রস্তুতি কালীন ৭৭০০০ মেট্রিক টন সরঞ্জাম বিলিয়ন মার্কিন ডলার এর বেশি অর্থের গাড়ি ধ্বংস করেছিল সেগুলো আফগানিস্তান থেকে ফেরত নিয়ে যাওয়া যাবে না বলে |


Photo credit: WikipediaBy Spc. Kristina Gupton



     মার্কিন অভিযানের আগে পর্যন্ত (১৯৯৬-১৯৯৯ পর্যন্ত) তালিবান গোষ্ঠী সম্পূর্ণ আজগানিস্তানএর ৯৬% আফিম উৎপাদন নিয়ন্ত্রণ করতো | প্রতি বছর সমস্ত বিশ্বের ৭৫% আফিম আফগানিস্তান উৎপাদন করতো | ২০০০ সালে ৩২৭৬ টন আফিম আফগানিস্তান একা উৎপাদন করেছিল | অভিযানের ঠিক পরবর্তী সময় (২০০৫) আফিম উৎপাদন বেড়ে সম্পূর্ণ বিশ্বের ৯০% দাঁড়ায় | বি বি সি রিপোর্ট অনুযায়ী যার মূল্য আনুমানিক ৬৫ বিলিয়ন মার্কিন ডলার | যা দেড় কোটি মানুষ এর নেশাগ্রস্ততা এক লক্ষ মানুষের মৃত্যুর কারণ প্রতি বছর | (সূত্র - Wikipedia)